Services

আমাদের সেবাসমুহ

প্রফেসর সংগ্রহঃ
উচ্চশিক্ষার আবেদনের প্রথম ধাপই হল একজন প্রফেসর বা হোষ্ট ম্যানেজ করা। বিষয়টি অবশ্যই কঠিন এবং চ্যালেঞ্জের। হয়তবা কিভাবে কি লিখবেন ভেবে ভেবেই শুরুটাই করা হচ্ছে না, গড়িয়ে যাচ্ছে আপনার সময়। আবার হয়তবা লিখতে লিখতে হতাশ হয়ে পড়েছেন, প্রফেসর পাচ্ছেন না। এমনটি হতে পারে কারণ প্রতিদিন আপনার মতই অনেকেই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসব প্রফেসরদেরকে লিখছেন। এত ইমেইল পড়ার সময় কোথায় ঔসব প্রফেসরদের তাই পরিচিত ইমেইলগুলো পড়ে বাদবাকীগুলো মুছে ফেলেন ইনবক্স থেকে। আবার একজন প্রফেসর রাজী হওয়ার আগে অনেক কিছু জানতে চায় যেমন আপনি কিসের উপর কাজ করতে চান, আপনার এই বিষয়ে অভিজ্ঞতা আছে কিনা ইত্যাদি ইত্যাদি। এসব বিষয় সুকৌশলে পেড়িয়ে আসতে পারলে হয়তবা প্রফেসর রাজি হতে পারে আপনাকে সুপারভাইজ করার জন্য। কিন্তু প্রফেসরের পরিচিত কেউ যদি আপনার জন্য একটু সুপারিশ করে তাহলে বিষয়টি অনেক সহজ হয়ে যাবে।

Cover letter, Motivation letter তৈরিঃ
একজন প্রফেসর তার পছন্দের ছাত্রটিকে পরীক্ষা করার জন্য এবং বৃত্তির আবেদন করার সময় Motivation letter চায়। এই Motivation letter এর উপর নির্ভর করে একজন প্রফেসরের রাজী হওয়া এবং বৃত্তি পাওয়ার সম্ভাবনা। তাই এই Motivation letter বা cover letter টি খুব যত্নের সহিত তৈরি করতে হয়।

Recommendation letter প্রদানঃ
বৃত্তির আবেদনের সময় কিংবা প্রফেসর রাজী হওয়ার সময় এক বা একাধিক ব্যাক্তির letter of recommendation প্রয়োজন হয়। এসব ক্ষেত্রে খুব কাছের বা অতিপরিচিত কেউ না হলে সাধারণত সুপারিশ করতে চায়না। যে বিষয়ের উপর আপনি মাষ্টার্স বা পিএইচডি এর আবেদন করতে যাচ্ছেন সেই সংশ্লিষ্ট বিষয়ের অভিজ্ঞ প্রফেসর বা গবেষক এর নিকট থেকে letter of recommendation সংগ্রহ করা হবে।

সিনোপসিস বা গবেষণাপত্র তৈরিঃ
প্রফেসর আপনাকে সুপারভাইজ করতে রাজী হওয়ার আগে বা স্কলারশীপের আবেদন করার আগে আপনাকে একটি গবেষনাপত্র তৈরি করতে হবে। আপনি কিসের উপর কাজ করতে চাচ্ছেন, প্রফেসরের এ বিষয়ে আগ্রহ আছে কিনা সবকিছু বিবেচনা করে আপনাকে গবেষনা পত্রটি তৈরি করতে হবে। যে বিষয়ে উপর আপনি কাজ করতে চাচ্ছেন তার মধ্যে অবশ্যই কিছু নতুনত্ত্ব থাকতে হবে। এ বিষয়ে আপনাকে জানতে হবে এবং তথ্য সংগ্রহ করে তা সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে হবে। গুরুত্বপূর্ণ এই কাজটি করতে আপনাকে সহযোগীতা করা হবে।

বৃত্তি সংগ্রহঃ
সরকারী, বেসরকারী ও ব্যাক্তিগত পযায়ে অনেক বৃত্তি পাওয়া যায়। আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী বৃত্তির ব্যবস্থা করা হবে।

নিশ্চয়তা ও সম্ভাবনাঃ
আপনার CV দেখে সম্ভাবনার বিষয়টি নিশ্চিত করা হবে।

দেশসমুহঃ
TOFEL/IELTS ছাড়া- ইউরোপ ও এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশ
TOFEL/IELTS সহ- ইউরোপ, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, মধ্যপ্রাচ্য

বিষয়সমুহঃ
ভেটেরিনারি সায়েন্স, মেডিক্যাল সায়েন্স, এনিম্যাল সায়েন্স, কৃষি, মৎস্য, কৃষি প্রকৌশল, মাইক্রোবায়োলজি, পাবলিক হেলথ, ইনভায়রোমেন্টাল সায়েন্স, ফুডসায়েন্স এন্ড টেকনোলজি, বায়োকেমিষ্ট্রি, ফার্মেসী, ন্যাচারাল সায়েন্স, বায়োলজি এর সকল বিষয়সমুহ